Friday, April 19, 2024

বাগেরহাটে ডুবে যাওয়া ১৮০ মেট্রিক টন চাল উত্তোলন শুরু

বাগেরহাট প্রতিনিধি- বাগেরহাটের মোংলা পশুর চ্যানেলে ডুবে যাওয়া বাল্কহেড এম ভি সাফিয়া থেকে চাল উদ্ধার শুরু হয়েছে। সোমবার (১ এপ্রিল) সকালে ৭টা ট্রলার নিয়ে ৭ জন ডুবুরি ও ৫০ জন শ্রমিক চাল উদ্ধার কাজে অংশ নেন। চাল উত্তোলন শেষে বাল্কহেডটি উদ্ধার করতে দুই তিন দিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়া শ্রমিকরা। তবে দীর্ঘ সময় পানির নিচে থাকায় বেশির ভাগ চালের বস্তা ফেটে গেছে এবং চাল ফুলে উঠেছে।

শ্রমিক শেখ রাজু বলেন, ৭ জন ডুবুরি ও ৫০ জন শ্রমিক মিলে চাল উদ্ধার শুরু করেছি। দুপুর পর্যন্ত দেড় হাজার বস্তা চাল উঠানো সম্ভব হয়েছে। এভাবে কাজ করলে আমাদের তিনদিনের মতো সময় লাগবে।

রবিউল নামের আরেক শ্রমিক বলেন, জাহাজটি যেখানে ডুবেছে সেখানে প্রায় ৩০ ফুট পানি রয়েছে। ডুবুরিরা অক্সিজেন নিয়ে পানির নিচে গিয়ে চালের বস্তায় হুক লাগিয়ে দেয়, আর আমরা ওপর থেকে টেনে তুলি। তবে চালগুলো ফুলে উঠেছে। বেশিরভাগ বস্তা ফেটে গেছে।

চাল পরিবহনকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স আব্দুর রশিদ এন্টারপ্রাইজের প্রতিনিধি মো. আরাফাত বলেন, ডুবে যাওয়া এমভি সাফিয়া নামের বাল্কহেডটির মাধ্যমে আমরা সরকারি এ চাল মোংলা খাদ্য গুদামে পৌঁছানোর দায়িত্বে ছিলাম। সকাল থেকে আমরা চাল উত্তোলনের কাজ শুরু করেছি। চাল উত্তোলনের পর ডুবে যাওয়া বাল্কহেডটি উদ্ধার করা হবে।

মোংলা নৌ পুলিশের ইনচার্জ সৈয়দ ফকরুল ইসলাম বলেন, বাল্কহেডটিকে ধাক্কা দেওয়া লাইটার এভি শাহাজাদা-৬ কে রোববার রাতে জব্দ করা হয়েছে। চাল পরিবহনকারী প্রতিষ্ঠান, বাল্কহেডের শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্তদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে মামলা দায়ের করা হবে।

গতকাল রোববার (৩১ মার্চ) বিকেলে মোংলার পশুর নদীর ত্রি-মোহনায় এমভি শাহাজাদা-৬ নামে একটি লাইটার জাহাজের ধাক্কায় বাল্কহেডটি ডুবে যায়। তবে এসময় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। জাহাজে থাকা ৫ নাবিককে অক্ষত অবস্থায় জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে ধাক্কা দেওয়ার অপরাধে এভি শাহাজাদা-৬ নামের লাইটার জাহাজটিকে এদিন সন্ধ্যায় আটক করেছে নৌ পুলিশ।

এর আগে সকালে খুলনার সরকারি খাদ্য গুদাম থেকে ছয় হাজার বস্তায় ১৮০ মেট্রিক টন সরকারি চাল নিয়ে মোংলা খাদ্য গুদামের উদ্দেশ্যে এমভি সাফিয়া নামে চাল বোঝাই একটি বাল্কহেড জাহাজ ছেড়ে আসে। ঈদ উপলক্ষে গরিব অসহায়দের জন্য চালগুলো আনা হয়েছিল।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

jashore-fish

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত