Monday, December 5, 2022

চাঁচড়ার রনি হত্যাকান্ডে সেই নুরু মহুরীসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

যশোরের চাঁচড়ায় রনি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সেই নুরু মহুরি ও তার ছেলেসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। নিহত রনির মা ছায়রা বেগম সোমবার রাতে এ মামলা করেছেন।

- Advertisement -

আসামিরা হচ্ছেন ভাতুড়িয়া নারায়ণপুরের মৃত ওসমানের ছেলে নুর ইসলাম ওরফে নুরু মহুরি (৫০),তার  ছেলে ইসরাজুল (২৫), চাঁচড়ার বর্মনপাড়ার পুলিন বর্মনের ছেলে রকি (২৪), একই এলাকার বিমলের ছেলে রবি (২৫), মনি বর্মনের ছেলে মানিক (২৫),  একই গ্রামের রওশনের ছেলে গাফ্ফার হোসেন (৩৫), ইসরাইল গাজির ছেলে অহিদুজ্জামান লিটন (৪২), অজেদ ড্রাইভারের ছেলে আল-আমিন (২৮), কুদ্দুসের ছেলে শান্ত (২৮), মৃত হাসেম আলীর ছেলে রফিকুল (৩৫), হামিদের ছেলে সজল (২২), নুরু মহুরির জামাই এনামুল (৩৯)। এদিকে রনি হত্যার প্রতিবাদে গ্রামবাসী নুরু মহুরির ফাঁসির দাবিতে শহরে মিছিল করেন।

মামলায় ছায়রা বেগম উল্লেখ করেছেন,  রনি চাঁচড়া মাছের খামারে কাজ করতো। ৩ মাস আগে ভাতুড়িয়া কলেজে আসামি ইসরাজুলের সাথে রনির কাথা কাটাকাটি হয়। ওই সময় ইসরাজুল হত্যার হুমকি দেয় রনিকে। এরপর থেকে আসামিরা রনিকে মারপিট খুন জখমের হুমকি দিয়ে আসছিলো। আসামিরা প্রায় রনির গতি বিধি লক্ষ্য করে হত্যার জন্য সুযোগ খুঁজতে থাকে। পহেলা অক্টোবর সন্ধ্যায় রকি ও রবি তার ছেলে রনিকে বাড়ি থেকে নাম্বারবিহীন মোটর সাইকেলে এসে কথা আছে বলে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর গভীর রাত হওয়ার পরেও রনি বাড়ি না ফেরায় বাড়ির লোকজন সম্ভাব্য স্থানে খোঁজাখুজি করে । এক পর্যায়ে ২ অক্টোবর রাত ৮ টায় লোক মারফত জানতে পারি চাঁচড়া বর্মনপাড়া শ্মশানের পাশে মুক্তেশ্বরী নদীতে আমার ছেলে রনির মৃতদেহ পাওয়া যায়।

চাঁচাড়া ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর আকিকুল ইসলাম জানান, রনির লাশ উদ্ধারের দিন রোববার রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রকিকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

রাতদিন সংবাদ

- Advertisement -

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ